ভালো একজন পুরুষের বৈশিষ্ট্য

file-13আমাদের সমাজের পুরুষরা কেমন যেন দিন দিন বেপরোয়া হয়ে যাচ্ছে। নিজের পৌরষত্ব দেখানোর জন্য কোন না কোন দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ছে। কিন্তু তাই বলে কি ভালো পুরুষ নেই? অবশ্যই আছে। তবে ভালো পুরুষ না মন্দ পুরুষ কেমনে বুঝবেন? এই হলো প্রশ্ন। একটু পর তার উত্তর পাবেন। আমাদের সমাজে অনেকেই শুধু সুন্দর দেখেই সম্পর্ক জড়িয়ে পড়েন। অনেক নারী পুরুষের সৌন্দর্য, অভারস্মার্ট, ক্রেজি ভাব দেখে ভাল মন্দ যাচাই না করেই প্রেমে হাবুুডুবু খান। অনেকেই প্রেমে অন্ধ হয়ে পড়েন। মনোবিদরা বলছেন, শুধু সুন্দর দেখে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়া খুব অনুচিত এবং এটা বড় ভুল। মূলত সবচেয়ে জরুরী একজন ভালো মানুষকে ভালোবাসতে পারা। ওভারস্মার্ট, ফ্যাশনেবল কিংবা অর্থবিত্ত বেশি দেখে নয়, একজন নারীর জন্য একজন ভালো মানুষকে জীবনসঙ্গী করা খুব জরুরী। কেননা, একজন ভালো মনের পুরুষ কখনো আপনাকে অত্যাচার করবে না, কষ্ট দেবে না, অপমান করবে না, তাঁর কাছে একজন নারী থাকবে সম্পূর্ণ নিরাপদ। তাহলে চলুন নিচের বিষয়গুলি দেখে আপনার প্রিয় পুরুষটি কতোটা ভালো মানুষ জেনে নেয়া যাক।

সত্য প্রকাশ: একজন ভালো মনের পুরুষ কখনোই ভালোবাসা প্রকাশে দ্বিধা করবেন না। তিনি সবসময়ই সত বলতে প্রস্তুত থাকেন। যেকোনো কঠিন মুহূর্তেও একজন ভালো মানুষ সত্য বলেন এবং তার সঙ্গীকে সুখে রাখার চেষ্টা করেন। তাছাড়া সত্য প্রকাশে সংকোচ কীসের?

পাশে থাকবেন: একজন ভালো পুরুষ সব সময়েই আপনার পাশে থাকবেন, আপনাকে সার্পোট দেবেন। জীবনের কঠিন মুহূর্তে আগলে রাখবেন।
উৎসাহ দাতা: একজন ভালো মনের পুরুষ কখনো কাউকে নিরুৎসাহিত করেন না। তিনি আপনাকে জীবনযুদ্ধে এগিয়ে যেতে সর্বাদা উৎসাহ যোগাবেন। প্রিয়জনকে তো করেনই, আশপাশের মানুষগুলিকেও তিনি ভালো কাজের উৎসাহ দেন।

বিশ্বাস ধরে রাখেন: একজন প্রকৃত পুরুষ বা ভালো পুরুষ আপনার বিশ্বাস অর্জন বিশ্বাস ধরে রাখার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করেন। ভালো মনের প্রেমিক বা স্বামী আপনার বিশ্বাস ভঙ্গ হয় এমন কাজ করবেন না।

নিরাপদ স্থান: একজন ভালো পুরুষের সংস্পর্শে আপনি নিরাপদ বোধ করবেন, তিনি সর্বদা আপনার নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন।

অপমান করেন না: একজন ভালা মানুষ কখনোই এমন কিছু করবেন না বা বলবেন না যার ফলে আপনি অপমানবোধ করেন। তিনি আপনার অসুন্দর মনে হয় এমন কিছুই করবেন না।

পছন্দকে গুরুত্ব দেবেন: একজন ভালো মানুষ সবসময় আপনার ছোটখাট সকল পছন্দ-অপছন্দকেই গুরুত্ব দেবেন। আপনার সবকাজের গুরুত্ব প্রথম আপনি তার কাছ থেকেই পাবেন যিনি ভালো মনের বা উদার মনের পুরুষ।

সম্মান ধরে রাখেন: জীবনের প্রতিটি সম্পর্কেই একটি নির্দিষ্ট সম্মানের সীমারেখা থাকে। একজন ভালো মনের পুরুষ সেই সম্মানের সীমারেখা লঙ্ঘন করবেন না।

সম্পর্ক ধরে রাখার চেষ্টা করেন: কথা আছে, স্বাধীনতা অর্জনের চেয়ে, রক্ষা করা কঠিন’। একটি সম্পর্কের বেলাতেও তা গুরুত্বপূর্ণ। একজন ভালো মানুষ শুধু সম্পর্ক গড়েই ক্ষান্ত থাকেন না, সেই সম্পর্কটি টিকিয়ে রাখার জন্য সারাজীবন চেষ্টা করবেন।

আপনার ইচ্ছাকে গুরুত্ব দেবেন: ভালো পুরুষ কখনোই অন্যের ইচ্ছায়, স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করেন না। নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে একজন ভালো মানুষ কখনোই আপনাকে কিছু করতে বাধ্য করবেন না।

সৎ এবং আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন: প্রকৃত ভালো মানুষ তিনিই যিনি অত্যন্ত সৎ এবং আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন। কেবল আপনার সাথেই নন, সবার সাথেই তিনি তা বজায় রাখার চেষ্টা করেন। কেননা একজন ভালো পুরুষ জানেন, জীবনে সততার গুরুত্ব আজ হোক কাল পাওয়া যাবেই।

নির্যাতন করেন না: একজন ভালো মনের পুরুষ কখনোই আপনাকে শারীরিক-মানসিক নির্যাতনের কথা স্বপ্নেও ভাববেন না। শত অপমান সহ্য করেও ভালো মানুষ জীবনে এগিয়ে যেতে পারেন।

বিশ্বাস করেন: একজন প্রকৃত ভালো মানুষ কখনোই কারোর উপর আস্থা-বিশ্বাস হারান না। তিনি তার সঙ্গীকে কখনোই অবিশ্বাস করবেন না। আপনি তাঁকে অবিশ্বাস করেন এমন কোন কাজও তিনি করবেন না।

বদ অভ্যাস থাকবে না: একজন ভালো মানুষের নোংরা কোন বদ অভ্যাস থাকবে না। কখনো কোন নেশাজাতীয় দ্রব্য তিনি সেবন করবেন না, জীবনের শত প্রতিকূলতার মাঝেও তিনি নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। অতীতে তাঁর কোন বদ অভ্যাস থেকে থাকলেও আপনার খাতিরে সেগুলো তিনি ত্যাগ করবেন।

বাহ্যিক নয় মনের সৌন্দর্য: একজন ভালো মনের পুরুষ আপনার বাহ্যিক সৌন্দর্যের চেয়ে মনের সৌন্দর্যকে গুরুত্ব দেবেন। কেননা, তিনি বুঝেন সৌন্দর্য সবসময় একই রকম থাকে না। মানুষের জীবনের এই গূঢ় বাস্তবতাগুলি একজন ভালো মনের পুরুষই বুঝতে পারেন। কাজেই সম্পর্ক গড়ার আগে যাচাই করুন, আপনার প্রিয় পুরুষের মাঝে এই গুণসমূহ রয়েছে কিনা।

Updated: October 31, 2016 — 6:16 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bdtips © 2015