সুখি দাম্পত্য জীবনের উপায়

f19477-579x350আগে বলা হতো যেসব যুগল একসঙ্গে খেলাধুলা করেন তাদের বিয়ে বেশিদিন স্থায়ী হয়। কিন্তু গবেষকরা এখন বলছেন সুখি দাম্পত্য নিশ্চিত করার জন্য সবচেয়ে বেশি কার্যকর পন্থা হল নগ্ন হয়ে শোয়া। সম্প্রতি ব্রিটেনে পরিচালিত এক জরিপে দেখা গেছে, ৫৭ শতাংশ যুগল- যারা নগ্ন হয়ে বিছানায় যান তারা যে ৪৮ শতাংশ যুগল পায়জামা পরে বিছানায় যায় তাদের চেয়ে অনেক বেশি সুখি। ওই জরিপে ১ হাজার ব্রিটিশ দম্পতি অংশগ্রহণ করেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, নগ্ন হয়ে বিছানায় গেলে যুগলদের পরস্পরের শারীরিক স্পর্শ অনেক বেশি কোমল অনুভুত হয়। এর ফলে নিজেদের মধ্যে অনেক খোলামেলা বোঝাপোড়া হয় ও ঘনিষ্ঠতা গাঢ় হয়। যার পরিণতিতে দাম্পত্য জীবনে সুখ বাড়ে। তবে সুখি দাম্পত্যের ক্ষেত্রে আলাদা বেডরুম, আলাদা বাথরুম, ঝগড়া-ঝাটি ও সহবাস প্রভৃতিরও ইতিবাচক ভূমিকা সম্পর্কিত আলাদা আলাদ তত্ত্ব রয়েছে।

গায়ের গন্ধ: হলিউড অভিনেত্রী গোল্ডি হন (৬৮) তার স্বামী কুর্ট রাসেল (৬৩) এর সঙ্গে ঘর করছেন ৩০ বছর ধরে। তিনি বলেন, দাম্পত্য জীবন দীর্ঘ হওয়ার একটি বড় সূত্র হলো পরস্পরের গায়ের গন্ধ পছন্দ হওয়া। গায়ের গন্ধ পছন্দ হলে পরস্পরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতাও বাড়ে।

আলাদা বিছানা: আলাদা বিছানায় ঘুমালে পরস্পরের বদঅভ্যাসগুলো থেকে মুক্ত থাকা যায়। ইউনিভার্সিটি অব সুরিতে একটি স্লিপ ল্যাবরেটরি চালান ড. নেইল স্ট্যানলি। তিনি বলেন, দাম্পত্য সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য একই বিছানায় ঘুমাতে হবেই এমন কোনো কথা নেই। এটা একটা আজগুবি কথা। আর যেসব দম্পতির সদস্যরা অনেক বেশি ক্লান্ত হয়ে বিছানায় যায় তাদের মধ্যে তালাকের হার বেশি। হলিউডের একটু ভিন্ন ধরনের যুগল টিম বার্টন ও হেলেনা বোনহাম কার্টার একসঙ্গে একই বিছানায় ঘুমান না। এমনকি প্রকৃতপক্ষে তারা পাশাপাশি দুটো আলাদা বাড়িতে বসবাস করেন। কারণ টিম বার্টন ঘুমানোর সময় নাক ডাকেন।

ঝগড়া করা: দীর্ঘদিন ধরে সংসার করছেন এমন কোনো যুগল যদি বলেন যে তারা ঝগড়া করেন না। তাহলে বিশ্বাস করবেন না। কারণ ঝগড়া করা স্বাস্থ্যকর।

সপ্তাহে তিন দিন সহবাস করা: একটি যথাযথ দাম্পত্য জীবন লাভের গুপ্ত কথা হলো- সপ্তাহে অন্তত তিনদিন মোট অন্তত সাতবার যৌন সহবাস করা। যুক্তরাষ্ট্রে চালানো এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। ১ হাজার বিবাহিত যুগলের উপর চালানো ওই গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব যুগল সপ্তাহে অন্তত ১০ বার পরস্পরকে চুম্বন করে, টিভি সেটের সামনে বসে পরস্পরকে সপ্তাহে অন্তত ছয়বার গাঢ় আলিঙ্গন করে এবং মাসে অন্তত ১০ বার অর্থপূর্ণ সংলাপ করে তারা দাম্পত্য জীবনে অনেক সুখি।

জোড়া ডেট: বিজ্ঞানীরা গবেষণায় দেখতে পেয়েছেন কোনো যুগল যদি অন্য আরেকটি যুগলের সঙ্গে নিজেদের প্রেম-রোমান্সের কথা শেয়ার করতে পারেন তাহলে তারা সুখি হন। ফলে অন্য যুগলের সঙ্গে জোড়া ডেটিংয়ে গেলে সুখও দ্বিগুন হয়ে যাবে। ইউনিভার্সিটি অব ম্যারিল্যান্ডের মনোবিজ্ঞানীরা গবেষণায় দেখতে পেয়েছেন জোড়া ডেটিংয়ে যুগলরা নিজেদের মাঝে আরো বেশি ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়ার সুযোগ পান এবং নিজেদের সম্পর্কে আরো বেশি জানতে পারেন। ওই গবেষণার প্রধান অধ্যাপক জিওফ্রে গ্রিফ বলেন, ‘যেসব যুগলের যুগল বন্ধু আছে তারাই দাম্পত্য জীবনে বেশি সুখি হন ও দীর্ঘ দাম্পত্য জীবন লাভ করেন।’ তবে জোড়া ডেটিংয়ের বিপদও আছে। তিনি বলেন, আমরা কিছু যুগলের সাক্ষাৎকার নিয়ে জানতে পেরেছি জোড়া ডেটিংয়ে গিয়ে কোনো যুগলের একজনের সঙ্গে অপর যুগলের কোনো সদস্যেরও সম্পর্ক হয়ে যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

আলাদা বাথরুম: ডায়নাস্টি তারকা জোয়ান কলিনস জীবনে পাঁচবার বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। ফলে দাম্পত্য বিষয়ে তার বিশেষ অভিজ্ঞতা রয়েছে। ৮১ বছর বয়সী ওই তারকা বলেন, আমি কোনো স্বামীর সাথে একই বাথরুমে প্রবেশ করিনি। এমনকি আমি মনে করি যুগলদের জন্য আলাদা আলাদা বাথরুম থাকা দরকার। এছাড়া তিনি, যুগল সদস্যদের পরস্পরের জীবনে হস্তক্ষেপ না করারও পরামর্শ দেন। ভারতীয় ফ্যাশন কনসালট্যান্ট সাবিনা চোপড়াও মুম্বাই মিররকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জোয়ান কলিনসের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন। তিনি বলেন, ‘দু’জন মানুষের মাঝে একটু দূরত্ব বজায় রাখার মানেই কিন্তু এমন নয় যে তারা পরস্পরের সঙ্গ উপভোগ করছেন না। আর পুরুষরা বাথরুমে ঢুকলে একটু ভয়ানক আচরণই করে বটে।’

Updated: October 30, 2016 — 11:53 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bdtips © 2015