স্ত্রীর মন জয়ের ৪ কৌশল

impress-womenস্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে মতপার্থক্যের কারণে কথা-কাটাকাটি, মনোমালিন্য বা অভিমান হওয়াটা সাধারণ ব্যাপার। সারা জীবন একজন মানুষের সঙ্গে কাটাতে গেলে, একটু-আধটু ছাড় দিতেই হয়। তা না হলে অকারণে তার মন খারাপের পর্যায়ে চলে যায়। সম্পর্কে তিক্ততা চলে আসে। অনেক সময় স্বামী বা স্ত্রী নিজের ইগো তথা আত্মমর্যাদাবোধকে বেশি প্রাধান্য দিতে গিয়ে নিজেদের অবস্থানে অনড় থাকেন।নিজের ভুল স্বীকার করে নিয়ে মিষ্টি করে একটা ‘সরি’ বলাটাও হয়ে ওঠে না। তাছাড়া একজন যখন একটু উত্তেজিত অবস্থায় থাকেন, তখন আরেকজনের উচিত শান্ত হয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়া। আর স্ত্রীদের হয়তো কথাটা একটু বেশিই শুনতে হয়। তাই পুরুষদের ওপর দায়িত্বটা একটু বেশিই বর্তায় বৈকি। সরাসরিই যে মুখে সবসময় সরি বা দুঃখিত বলতে হবে, তেমন বাধ্যবাধকতা তো নেই। স্ত্রীকে সরি বলার অনেক পদ্ধতি আছে। সে রকম কিছু টিপস এখানে তুলে ধরা হলো:

শুধু ফুল নয়:

সরি বলার জন্য স্ত্রীকে শুধু ফুল গিফট দেয়াটা মনে হয় সবচেয়ে ভাল সমাধান নয়। তাই ফুল গিফট করার সঙ্গে সঙ্গে তাকে সরিটাও বলুন। ভুলটা যদি আপনার হয়, আপনার এগিয়ে যাওয়াটাই উচিত। আর সরি মুখে না বলে স্মাইলি বা স্মিত হাসির ছবি এঁকে তার সঙ্গে একটি সরি নোট লিখে দিতে পারেন। চা বা কফি পানের যে মগটি স্ত্রী ব্যবহার করেন, তার ওপর সুন্দর করে তা সেঁটে দিতে পারেন। এভাবে নানা উপায়ে তার মন জয়ের চেষ্টা করতে পারেন।

স্ত্রীর জন্য রান্না করুন:

নারীর হৃদয় গলাতে তাকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন। রান্নার সময় নিজেও হাত লাগান। স্ত্রীর পছন্দের রান্নাটি করে তার সামনে সুন্দর করে পরিবেশন করুন। একটি সরি নোটও সঙ্গে লিখে দিন। এরপর নিশ্চয়ই আপনার স্ত্রী মনের মধ্যে আর রাগ বা ক্ষোভ পুষে রাখবেন না।

স্ত্রীকে বাইরে বেড়াতে নিয়ে যান:

কোন কারণে কথা-কাটাকাটি হয়ে থাকলে স্ত্রীকে নিয়ে সুন্দর কোন জায়গায় বেড়িয়ে আসুন। এতে দু’ জনেরই মন ভাল হবে। স্বতঃস্ফূর্ততা ফিরে আসবে। কোন ভাল রেস্টুরেন্টেও যেতে পারেন। নাস্তা কিংবা রাতের ডিনারটা সেখানেই সারলেন। সময় বুঝে স্ত্রীকে সারপ্রাইজ দিন ও সরি বলুন।

রোমান্টিক হয়ে উঠুন:

যে কোন নারীই চান, তার স্বামী বেশ রোমান্টিক স্বভাবের হবেন। প্যাঁচার মতো গোমড়ামুখ কারোরই পছন্দ নয়। নারীদের কাছে নিজেদের প্রকাশে পুরুষরা বরাবরই একটু পিছিয়ে। তাই মন খুলে নিজেদের প্রকাশ করুন। রোমান্টিকতা এক মুহূর্তেই স্ত্রীর অভিমানকে দূরে সরিয়ে দিতে পারে। স্ত্রীর সৌন্দর্যের অকপট প্রশংসা করুন। আপনার জীবনে তার প্রয়োজন কতটা, তা তাকে বুঝতে দিন। দেখবেন আপনাদের দাম্পত্য জীবন হয়ে উঠবে আরও বেশি আকর্ষণীয় ও সুখময়।

Updated: September 17, 2016 — 1:01 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bdtips © 2015