সবার কাছে দিন দিন খারাপ মেয়ে হয়ে যাচ্ছি

7024859-lonely-girl-busনাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানিয়েছেন নিজের সমস্যার কথা।

“আপু,অনেক সমস্যার মধ্যে আছি। একটু খুলে বলি।আমি বাবা-মা এর একমাত্র মেয়ে এবং একমাত্র সন্তান। একমাত্র হলে কি হবে, আমি অনেক রুলস এন্ড রেগুলেসন এর মধ্যে বড় হয়েছি।আমার আব্বু একজন ডাক্তার। আমাকে আব্বু আম্মু কোনকিছুতেই সেইরকম পাত্তা দেয় নাই। যখন যা ই চাইতাম,হয়ত দিত,কিন্তু অনেক পরে। যাইহোক, আমার থেকে অনেক আশা ছিল ওদের। ওরা চেয়েছিল আমি ডাক্তার হই। কিন্তু, কিছু কারণে ডাক্তারি পড়তে পারিনি। আম্মু আমার উপর রাগের শুরুটা তখন থেকেই। আরও অনেক কারণেই হয়ত আমার উপর আম্মুর রাগ। এখন এমন অবস্থা যে আমি যাই করি আম্মু রেগে যায়।

বলে রাখি, এখন একটা ছেলের সাথে আমার সম্পর্ক আছে। আমারা সেইম এইজ। আম্মু এইটা মেনে নিতেই পারছেনা। রিলেশনটা হুট করেই হয়ে গেছে আমার অনেক কাছের এক বন্ধুর সাথে। সেইম এইজ দেখে এবং ওর ফ্যামিলি সম্পর্কে খুব একটা ভাল কথা না শোনায়, আম্মু আব্বু খুব রাগ দেখাচ্ছে। এমনকি আমাকে অনেক কিছু থেকে বঞ্চিত করছে। যেমন, সাডেন ট্রিপ। আম্মু আব্বুর সাথে সম্পর্কটাও খারাপই হচ্ছে দিন দিন। এখন আমার রিলেশন নিয়ে কিছু কথা বলি। ও প্রথম প্রথম আমাকে বুঝত। এখন অনেকটা চেইঞ্জ মনে হয় আমার। ও ফ্যামিলির একমাত্র ছেলে। ওর উপর অনেক দায়িত্ব। প্রথম প্রথম ব্যাপারটা আমার ভাল লাগত। টাইম দিতে পারেনা দেখে একটুও রাগ হতাম না। কিন্তু এখন ব্যাপারটা আমার আর সহ্যই হচ্ছেনা। টাইম দেওয়া বলতে ফোনে ম্যাসেজ, ফোনে কথা এইসব। এখন দেখা যায় ম্যাসেজের রিপ্লাই দেওয়ারও টাইম নাই ওর। ইদানিং অনেক রাগারাগি হচ্ছে। আর অনেক কষ্ট লাগছে এই জন্য যে ও অনেক বাজে ভাষা ইউজ করে গালি দেয়। যেটা আমি আমার চৌদ্দ গুষ্টিতেও কখনো শুনিনাই। আম্মু আমাকে বলে ওর ফ্যামিলি ভালনা। আমি সুখি হবোনা। সত্যি কথা বলতে আমারও এখন তাই মনে হয়। এত্ত জেদ আর রাগ ওর! আমি কিভাবে সুখী হব? আর যেই ছেলে এত বাজে ভাষা ব্যাবহার করে,সে সুখী করবে কিভাবে আমাকে!

কিন্তু ২ বছরের রিলেশন ভেঙ্গেও যেতে দিতে পারিনা। আমি অনেকটা পিছিয়ে পড়লেও আবার সামনে এগোতে হয় ওর জন্য। ও পাগলামি শুরু করে। মদ খাওয়া শুরু করে। ড্রাগ নেওয়ার ভয় দেখায়। আমাকে কিছুতেই ফেইসবুক ইউজ করতে দিতে চায়না। আমাকে কেউ সুন্দর বললে রাগ এসে আমার উপর ঝাড়ে! আমি পুরাই কনফিউজড এখন।আমার মেজাজও এখন খিটখিটে হয়ে যাচ্ছে। আমার আশেপাশের মানুষ এর চোখে খারাপ মেয়ে হয়ে যাচ্ছি। কী করব আমি এখন?

এখন এমন অবস্থা যে আম্মুর ব্যাগ থেকে টাকা চুরি হলেও আম্মু আমাকে দায়ী করে। বলে আমি নাকি উনার থেকে টাকা মারি। উল্লেখিত, উনি আমাকে এক পয়সাও দেন না। নিজের প্রয়োজনে দিলে বাকি টাকা ফেরত নিয়ে যান। আমি দিন দিন কেমন জানি হয়ে যাচ্ছি আপু। আমার কি মানসিক চিকিৎসার প্রয়োজন? অল্পতেই রেগে যাই। এখন আমার কী করা উচিত আপু? কীভাবে আমি আব্বু আম্মুর বিশ্বাস ফেরত পাব? আর আপনি কী বলেন? আমার কি ওকে বিয়ে করা উচিত? উল্লেখিত, আমিও ওকে আমার জীবনের চেয়ে বেশি ভালবাসি।”
পরামর্শ:

আপনার শেষ প্রশ্নগুলো থেকে শুরু করি আপু। না, আমার মনে হয় না এই ছেলেটিকে আপনার বিয়ে করা উচিত। কেউ আপনার ওপরে অধিকার দেখালো, আপনি চলে যেতে চাইলে খারাপ হতে চাইলো, এইটা কোন ভাবেই ভালোবাসার লক্ষণ নয়। বরং তাঁর বেশিরভাগ আচরণেই আমার মনে হচ্ছে সে আপনাকে নিজের সম্পত্তি মনে করে, আপনি তাঁর কথামত চলবেন এমনটা আশা করে। যে মানুষ আপনাকে গালি গালাজ করে, সে কখনোই আপনাকে স্ত্রী হবার উপযুক্ত সম্মান দিতে পারবে না। আমি আপনার স্থানে হলে যতই ভালোবাসি না কেন আপু, এই ছেলেটিকে বিয়ে করতাম না। কারণ এই দুই বছরের ভালোবাসা আরও কিছু বছর গেলেই কেবল যন্ত্রণায় বদলে যাবে।

আপনার মা বাবার সাথে আপনার সমস্যা কোথায়, সেটা পরিষ্কার বুঝলাম না। তবে মনে হচ্ছে আপনার এই ছেলেটির সাথে প্রেম একটা বড় কারণ। এই ছেলেটির সাথে যদি মা বাবার মুখের দিকে তাকিয়ে হলেও সম্পর্ক ত্যাগ করেন, তাঁদের সাথে সম্পর্ক আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হয়ে আসবে। হ্যাঁ, তাঁরা হয়তো প্রথম প্রথম বিশ্বাস করবেন না। কিন্তু পিতা মাতা তো, আপনি আসলেই ওই ছেলেটির কাছ থেকে সরে গিয়েছেন জানতে পারলে তাঁদের আস্থা ফিরে আসবে।

আর হ্যাঁ আপু, আপনার এই ডিপ্রেশন বা বিভ্রান্তির জন্য একজন মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ দেখালে ভালো হয়। না, আপনার কোন রোগ নেই। কিন্তু চিকিৎসকের সাথে কথা বললে আপনার বিষণ্ণতা কেটে যাবে ও মানসিক অবস্থার উন্নতি ঘটবে। জীবনের সাথে লড়াই করার সাহস পাবেন।

Updated: May 5, 2016 — 10:36 am

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bdtips © 2015