যৌনকেশ থাকা কি ভাল? কী বলছেন বিশেষজ্ঞ?

যৌনকেশ বয়ঃসন্ধিকালে শরীরের গোপনাঙ্গে দেখা দেয়। শরীরের প্রাপ্তবয়স্কতার লক্ষণ এই যৌনকেশ কিন্তু বহু মানুষের কাছেই অবাঞ্ছিত। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞেরা কী বলেন? যৌনাঙ্গে যৌনকেশ থাকা কি ভাল?

যৌনকেশ রাখা উচিত নাকি কেশমুক্ত রাখা উচিত যৌনাঙ্গ এই প্রশ্ন প্রায় সবার মনেই উঁকি দেয়। বিশেষ করে মেয়েদের মধ্যে যৌনকেশ ওয়াক্স করার প্রবণতা খুব বেশি। পুরুষের ক্ষেত্রে যৌনকেশের ঘনত্ব মেয়েদের চেয়ে তুলনামূলকভাবে কম থাকায় এই সংক্রান্ত সমস্যার খুব বেশি সম্মুখীন হতে হয় না।

যৌনকেশ থাকার কয়েকটি অপকারিতা রয়েছে—

১) যৌনকেশ থাকার জন্যেই শরীরের গোপন অংশে ঘাম জমে শরীরে দুর্গন্ধ হয়।

২) পার্টনারের যৌনকেশে উকুন থাকলে তা যৌন সংসর্গের ফলে যৌনকেশে বাসা বাঁধে। এটি এক ধরনের যৌনরোগ।

৩) যৌনকেশের গোড়ায় ময়লা ও ঘাম জমে নানা ধরনের ত্বকের সমস্যা দেখা দেয়।

৪) যৌনতার পরে যৌনকেশ ভাল করে পরিষ্কার না করলে তা থেকে ইচিং ও নানা ধরনের র‌্যাশ হতে পারে।

কিন্তু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এমিলি গিবসন বলছেন যৌনকেশ থাকা ভাল। ওঁর মতে প্রকৃতি শরীরকে এমন ভাবেই তৈরি করেছে যেখানে প্রতিটি অঙ্গ এবং বৈশিষ্ট্যের কোনও না কোনও উপযোগিতা রয়েছে। রোম যেমন ত্বককে নানাভাবে সুরক্ষা প্রদান করে তেমনই যৌনকেশ যৌনাঙ্গকে সুরক্ষিত রাখতে সাহায্য করে।

বিশেষ করে মেয়েদের এমিলির পরামর্শ, যৌনাঙ্গ ক্লিন শেভ না করে যৌনকেশ রাখতে দিন। তাঁর বক্তব্য, মেয়েদের যৌনাঙ্গকে আকস্মিক আঘাত থেকে আড়াল করতেই যৌনকেশ। তাছাড়া যৌনকেশ থাকার ফলে যোনির ভিতরে সহজে বাইরের ধুলোবালি ও নোংরা প্রবেশ করতে পারে না। তবে যৌনাঙ্গ এবং যৌনকেশ সব সময় পরিষ্কার রাখতে হয় নাহলে নানা ধরনের রোগব্যাধি হওয়ার সম্ভাবনা।

Updated: March 11, 2016 — 8:43 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bdtips © 2015