নারীর গোপন অঙ্গের দুর্গন্ধ দূর করার কার্যকরী উপায়

macica6গোপন অঙ্গের দুর্গন্ধ যেমন বিরকিত্কর তেমনি অসহ্য। কারো সাথে শেয়ার ও করা যায় না আবার ডাক্তারের কাছে যেতে লজ্জ্বা করে।বিশেষ করে গরমকালে এই সমস্যাটা একটু বেশি দেখা যায়।এই সমস্যা সবার ক্ষেত্রে না। শুধু কিছু কিছু ব্যক্তিদের হয়ে থাকে।এই সমস্য আপনার যৌন জীবনের উপর বিরুপ প্রভাব ফেলে।চলুন দেখা যাক কীভাবে এই গোপন অঙ্গের দুর্গন্ধ দূর করা যায়।

মানুষেরর প্রত্যেক ভাজে কম বেশি গন্ধ থাকে।যেমন বগল,পায়ের পাতা,গোপন অঙ্গে ছাাড়াও বিভিন্ন অঙ্গে। কীভাবে এই দুর্গন্ধ হয়?

* আপনি যদি স্বাস্থবান হয়ে থাকেন, তবে শরীরের ভাঁজে ভাঁজে ঘাম জমে যাবে। সেখানে ব্যাকটেরিয়া জন্মায় এবং দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে।

* তাছাড়া গোপন অঙ্গসমূহে ইস্ট বা ব্যাকটেরিয়া জনিত ইনফেকশন থেকে হতে পারে খুবই বাজে দুর্গন্ধ।

* গোপন অঙ্গসমূহ ভালভাবে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না করা, পিরিয়ডের সময় এক প্যাড দীর্ঘক্ষণ ব্যবহার করা ইত্যাদি কারণেও সৃষ্টি হয় দুর্গন্ধ।

* আপনি যদি খুব বেশী টাইট পোশাক অনেক্পষণ ধরে পরিধান করে থাকেন তবে ঘামে দুর্গন্ধ হতে পারে। অনেকের প্রস্রাব লিক করার কারণে দুর্গন্ধ হয়।

কী করবেন?

* সবকিছুর সর্বপ্রথম সমাধান হলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা। নিজের গোপন অঙ্গের যত্ন খুব ভালোভাবে নিতে হবে। সর্বদা ভালো অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল সাবান ব্যবহার করা চেষ্ট করুন।

* দুরন্ধ দূর করার জন্য বাজারে পাওয়া বালো মানের গোপন অঙ্গ পরিষ্কার করার জন্য বিশেষ সাবান এবং শেররের জন্য বডি স্প্রে ব্যবহার করেতে পারেন।

* গোপন অঙ্গে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল ও সুগন্ধী পাউডার ব্যবহার করুন।তবে মনে রাখবেন দীর্ঘসময় একই স্থানে পাউডার দিয়ে রাখা ঠিক না।

* আপনার প্যানটি পরার আগে ভারোকরে পারফিউম ছিটিয়ে নিন।

* টাইট পোশাক পরা থেকে বিরত থাকুন।কারণ এতে ঘাম বেশি হয়। গোপন অঙ্গে যদি দুর্গন্ধ হয় তবে ঢিলেঢালা পোশাক পরাই সবচাইতে ভালোেএতে গন্ধ বাড়তে পারে না।

* আপনার কি চুইয়ে চুইয়ে প্রশ্রাব এসে কি প্যানটি ভিজে যায়? এমন সমস্যা অনেক নারীরই থাকে। যদি তা হয় তো অবিলম্বে ডাক্তারেরপরামর্শ নিন।

* পিরিয়ডের সময় একটু বেশি পরিছন্ন থাকুন।আর ভালো কোম্পানির স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করার চেস্ট করবেন।

* আপনার গোপন অঙ্গ পরিষ্কার করতে হালকা উষ্ণ পানি ব্যবহার করুন। যতবার টয়লেট ব্যবহার করবেন, প্রতিবার ভালো করে সাবান দিয়ে পরিছন্ন হোন।

আশাকরি উপরের বিশয়গুলো একটু মেনে চললে ভারো এবং তাড়াতাড়ি ভারো ফল পাবেন।আর এরপরও যদি কোন সমস্যা থাকে তবে অবশ্যই ডাক্তারের কাছে যান। এটা হতে পারে অন্য কোন শারীরিক সমস্যার ইঙ্গিত! লজ্জায় নিজের শরীরকে অবহেলা করবেন না।দেশে অনেক ভালো ভালো গাইনি ডাক্তার আছেন। জীবনকে সুখময় করতে অবশ্যই তাদের পরামর্শ নিন।

Updated: March 2, 2016 — 12:21 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bdtips © 2015